সরকার ট্রান্সজেন্ডার নিয়ে কোনো আইন পাশ করবে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ফাইল ছবি

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, বাংলাদেশ সরকার ইতোপূর্বে ইসলামবিরোধী কোনো আইন পাশ করেনি, ভবিষ্যতেও ইসলাম বিরোধী কোনো আইন মুসলমানদের দেশে পাশ করা হবে না। তাছাড়া  ট্রান্সজেন্ডারকে অর্থাৎ ছেলে হয়ে নিজেকে মেয়ে পরিচয় দেওয়া কিংবা মেয়ে হয়ে ছেলে পরিচয় দেওয়া এ বিষয়ে  সরকারের কোনো আইনে তাদের বৈধতা দেবে না। 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, যেটা ইসলামে হারাম সেটাকে আমিও হারাম মনে করি এবং মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এটাকে হারাম মনে করেন। কাজেই ট্রান্সজেন্ডার বিষয়ে সংসদে কোন আইন পাস হবে না ইনশাআল্লাহ। 

বৃহস্পতিবার (২৫ জানুয়ারি) রাজধানী ঢাকার ঐতিহ্যবাহী মাদরাসা জামিয়া ইসলামিয়া দারুল উলুম মাদানিয়ার দস্তারবন্দী ও খতমে বুখারী অনুষ্ঠানে স্বারষ্ট্রমন্ত্রী এ কথা বলেন। 

তিনি বলেন, মাওলানা মাহমুদুল হাসান এ দেশের একজন মান্যবর আলেম৷ তাকে আলেমরা যেমন শ্রদ্ধা করেন আমরাও তেমন শ্রদ্ধা করি৷ আমারা অনেক জটিল বিষয়ের সমাধান হুজুর থেকে পেয়ে থাকি৷ মাওলানা মাহমুদুল হাসান সাহেব বাংলাদেশের উলামাদের মাঝে শান্তির প্রতীক৷

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, সরকার উলামায়ে কেরামের পরামর্শকে গুরুত্ব দিতে যথেষ্ট যত্নবান৷ জাতীয় শিক্ষা কারিকুলাম, তাবলিগ জামাত, পটিয়া মাদরাসাসহ দেশের চলমান বিভিন্ন সংকট নিরসনে আলেমদের পাশে চায় সরকার। 

উলামায়ে কেরামের কাছে বিশেষ আবেদন, আপনারা ইসলাম, মানবতা ও শান্তির বার্তা দেশময় ছড়িয়ে দিন৷ ইসলামের বদনাম করা ও ইসলামকে ধ্বংস করার জন্য শত্রুরা মরিয়া হয়ে কাজ করছে৷ আজ পুরো বিশ্বের মুসলমান ষড়যন্ত্রের শিকার৷ ওদের ভাষ্য হলো, মুসলিম মানেই হলো সন্ত্রাস! বাংলাদেশের উলামায়ে কেরাম যদি সোচ্চার ভূমিকা রাখেনে তাহলে শত্রুর সকল ষড়যন্ত্রই ব্যর্থ হবে৷ আমাদের কাছে প্রমাণিত হয়েছে, বাংলাদেশের উলামা বা মাদরাসার কেউ জঙ্গীবাদ ও সন্ত্রাসবাদের সঙ্গে জড়িত নয়৷

বাংলাদেশের মুসলমাদের মতো এতো ধর্মপ্রাণ মুসলমান পৃথিবীর অন্য কোথাও নেই৷ আপনারা ইসলাম দেশ ও মানবতার সেবায় কাজ করুন৷ ইনশাআল্লাহ, বিশ্বের মানচিত্রে বাংলাদেশ একটি উজ্জ্বল মুসলিম দেশ হিসেবে পরিচিতি পাবে৷

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার বাদ যোহর মজলিসে দাওয়াতুল হক বাংলাদেশের আমির মাওলানা মাহমূদুল হাসানের আলোচনার মাধ্যমে শুরু হয় আনুষ্ঠানিকতা। এতে উপস্থিত ছিলেন দেশের শীর্ষস্থানীয় উলামায়ে কেরাম৷

Show 2 Comments

২ Comments

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।